প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খাশোগি হত্যার দণ্ডের পর স্লাভোয় জিজেক বললেন, সৌদি আরব মুসলিম দেশগুলোর নয়, যুক্তরাষ্ট্রেরই বন্ধু

দেবদুলাল মুন্না:ইস্তানবুল দূতাবাসে সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যার দণ্ড নিয়ে সমালোচনার মুখে সৌদি আরব। অথচ যুক্তরাষ্ট্র তেমন প্রতিক্রিয়া দেখাচ্ছে না। গতবছর মিসিসিপিতে এক শোভাযাত্রায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, সৌদি আরবকে রক্ষা করছে যুক্তরাষ্ট্র।

তিনি সৌদি বাদশাহর উদ্দেশে বলেছেন,‘বাদশাহ, আমরা আপনাকে রক্ষা করছি। আমাদের সমর্থন ছাড়া আপনি দুই সপ্তাহও টিকবেন না।’ সৌদি আরব বিশ্বের শীর্ষ তেল রপ্তানিকারক দেশ। তাদের তেলের বড় ক্রেতা যুক্তরাষ্ট্র। আবার সৌদি আরবের অস্ত্রের বড় জোগানদারও যুক্তরাষ্ট্র। মুসলিম অন্যদেশগুলো কিন্তু সৌদির বন্ধু নয়। গত বুধবার এ এক্স এন টিভিকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে স্লাভোয় জিজেক এসব বলেন।

তবে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচের মুখপাত্র আহমেদ বেনচেমসি বলেন, ‘শুরু থেকে এখন পর্যন্ত মামলাটি নিয়ে গোপনীয়তা অবলম্বন করেছে সৌদি আরব। মুখোশ পরিহিত অভিযুক্তদের পরিচয় আমরা জানি না, কার বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট কী অভিযোগ আনা হয়েছে তাও জানি না’।

স্লাভোয় জিজেক বলেন,‘ সৌদি আরব চীনের উইঘুর নীতি সমর্থন করেছেন। মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের জাতিগত গণহত্যায় সরাসরি সমর্থন না দিলেও চুপচাপ ছিল। কাশ্মীরের বিষয়ে নিশ্চুপ । দশকের পর দশক ধরে ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েল নীরব গণহত্যা পরিচালনা করলেও আরব দেশগুলো ইসরায়েলকে মেনে নিয়েছে। সুদান,মিসর,ইয়েমেন, সিরিয়ার ব্যাপারে সৌদি আরবের মনোভাব বিরুপ।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত